জীবনে এমন কত বিচ্ছেদ, কত মৃত্যু আছে, ফিরিয়া লাভ কি? পৃথিবীতে কে কাহার…

আমায় আর আমার স্ত্রীকে ব্রিটেনে থাকার অনুমতি দিতে হবে । ক বছর ধরেই প্রশাসন, আদালতের কাছে একই আবেদন করেই চলেছিল লাটভিয়ার ৩০ বছর বয়সী বোগডেন ক্রোইটর । কিন্তু আদালত পরিষ্কার জানিয়ে দেয়, বোগডেনকে ব্রিটেনে থাকার অনুমতি দেওয়া হলেও মোলদোভার বাসিন্দা তাঁর স্ত্রীকে ঢুকতে দেওয়া হবে না । বোগডেনের স্ত্রীকে দু দুবার ব্রিটেনে ঢুকতে বাধা দেওয়া হয় । এরপরেই ফন্দি আটেন বোগডেন । ঠিক করেন সোজা আঙুলে ঘি- না উঠলে তাঁর স্ত্রীকে ব্রিটেনে নিয়ে যেতে আঙুলটা একটু বেঁকাতে হবে ।
গাড়িতে করে ব্রিটেনে ঢোকার আগে চেকিংয়ের কথা আশঙ্কা করে স্যুটকেস ব্যাগে লুকিয়ে রাখেন বোগডেন । কয়েকটা চেকপোস্টে চেকিংয়ের পরেও বোগডেনকে ধরা যায়নি । ব্রিটেনে ঢুকে যাওয়ার পর এক জায়গায় একেবারে শেষে ধরা পড়ে যান বোগডেন । ব্যাগ খুলে বেরিয়ে আসেন তাঁর স্ত্রী । সঙ্গে সঙ্গে বোগডেনকে গ্রেফতার করা হয় । এবার ১৪ মাসের জেলের শাস্তি খাটতে হবে বোগডেনকে ।

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this: