জীবনে এমন কত বিচ্ছেদ, কত মৃত্যু আছে, ফিরিয়া লাভ কি? পৃথিবীতে কে কাহার…

প্রয়োজনীয় তথ্য মনে রাখার জন্য আমরা সাধারণত তথ্যগুলো টুকে রাখার অভ্যাস তৈরি করি। কিন্তু তাতে কি তথ্যগুলো আদৌ মনে রাখা যায়? বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এই অভ্যাস আমাদের মনে রাখার ক্ষমতা তো বাড়ায়ই না, উল্টো তাতে বাদ সাধে। পরীক্ষায় এর প্রমাণ পেয়েছেন বিজ্ঞানীরা। এ জন্য গবেষণায় অংশগ্রহণকারীদের স্মৃতির পরীক্ষা নেওয়া হয়। সবাইকে কিছু কার্ড দেখানো হয়। একের পর এক সেসব কার্ড দেখানো হয়। এ সময় একটি দলকে নোট টুকে রাখার সুযোগ দেওয়া হয়। তবে অন্য দলটিকে এ রকম কোনো সুযোগ দেওয়া হয়নি। কার্ড দেখানো শেষ হওয়ার পর প্রথম দলের কাছ থেকে টুকে রাখা নোটগুলো নিয়ে নেওয়া হয়। এরপর সেসব কার্ডে কী ছিল, কোন কার্ডের পর কোন কার্ড দেখানো হয়েছে- এ জাতীয় নানা প্রশ্ন করা হয় উভয় দলের সদস্যদের। দেখা গেছে, যারা নোট টুকে রাখেনি তারাই স্মৃতির পরীক্ষায় ভালো করেছে। অথচ নোট টুকে রাখা সত্ত্বেও প্রথম দলটি পরীক্ষায় খারাপ করেছে।
এর কারণ ব্যাখ্যায় যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্কে অবস্থিত মাউন্ট সেন্ট ভিনসেন্ট ইউনিভার্সিটির মনোবিজ্ঞানীরা জানান, মানুষ যখন কোনো বিষয় মনে রাখার উদ্দেশ্যে লিখে রাখে, তখন আসলে উল্টোটা ঘটে। লিখে রাখার ফলে ব্যক্তির মন অবচেতনভাবেই ভেবে নেয় ‘লেখাই তো আছে। এটাকে মস্তিষ্কে জায়গা দেওয়ার কোনো দরকার নেই। তার চেয়ে বরং অন্য কোনো তথ্যের জন্য জায়গা রাখা যাক।’ অর্থাৎ অনেকটা ইচ্ছে করেই মানব মস্তিষ্ক টুকে রাখা তথ্যটা ভুলে যায়। ফলে পরবর্তী সময়ে প্রয়োজন হলেও সেটা আর মনে করা সম্ভব হয় না।
টাইমস অব ইন্ডিয়া।

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this: