জীবনে এমন কত বিচ্ছেদ, কত মৃত্যু আছে, ফিরিয়া লাভ কি? পৃথিবীতে কে কাহার…

অনেক পুরুষ আছেন, যারা নিজের জীবনে একজন নারী থাকা সত্ত্বেও অন্য কারো স্ত্রী বা প্রেমিকার সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন। মজে যান নিষিদ্ধ সম্পর্কে। এদের মধ্যে কেউ আবার নিজের ঘরে অশান্তি বাধিয়ে ফেলেন, কেউবা নিরবে চালিয়ে যান দ্বিতীয় সম্পর্ক। দীর্ঘদিন ঘর করেও নিরীহ বউটি বুঝতেই পারে না তার স্বামী অন্য কারো প্রতি কতোটা আসক্ত। কিন্তু পুরুষের চোখে পরস্ত্রী এতো আকর্ষণীয় কেন? আসুন, জেনে নেয়া যাক কিছু কারণ।

একঘেয়ে সম্পর্ক
পৃথিবীতে বেশিরভাগ মানুষই প্রেম বা বিয়ের সম্পর্ককে বেশিদিন আকড়ে ধরে রাখতে পারেন না। জীবনভর একই ছাদের নিচে থাকেন বটে, তবে সংসারের নিয়মে। মনে মনে হাঁপিয়ে ওঠলেও, থাকতে হয় সংসার নামক গণ্ডিতে বন্দী। সেই বন্দী জীবনে একটুখানি বৈচিত্রের ছোঁয়া পেতে অনেক পুরুষই আকৃষ্ট হন অন্য নারীর প্রতি।

অপূর্ন প্রত্যাশা
হয়তো সঙ্গীর কাছ থেকে অনেক কিছু প্রত্যাশা থাকে পুরুষের। অনেক আশা করে বিয়ে করেছেন, কিন্তু সেই আশা পূরণ হয়নি। এমন ক্ষেত্রে প্রেমিক পুরুষরা শুরু করেন নতুনের খোঁজ। নিজের স্ত্রীর প্রতি আকর্ষণ হারিয়ে অন্যের প্রতি ঝুঁকে পড়েন। ভাবেন সুখের খোঁজ হয়তো তিনি পেয়ে গেছেন। তার কাছে নদীর ওপারের বন বেশি সবুজ লাগার মতোই ঘটে যায় ব্যপারটা।

সঙ্গিনীর প্রতি আকর্ষণ হারিয়ে ফেলা
পুরুষদের মধ্যে অনেকেই নিজের সঙ্গীর প্রতি আকর্ষণ হারিয়ে ফেলে। প্রতিদিন একই চেহারা, একই সাজসজ্জা, একই আচরণ মনে হতে থাকে। তাই অন্য নারীর দিকে পুরুষের নজর চলে যায়। তাছাড়া পুরুষের চাহিদামতো সব নারীর শারীরিক সক্ষমতাও এক থাকে না। দিনের পর দিন ছাড় দিতে গিয়ে একসময় পুরুষটি সঙ্গীর প্রতি আকর্ষণ হারিয়ে ফেলেন। আর তখনই জড়িয়ে যান নতুন কোনো সম্পর্কে। তখন আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দু হয় পরস্ত্রী।

পুরনো অভ্যাস
বিয়ের আগেও অনেক পুরুষের অভ্যাস থাকে একসঙ্গে অনেক সম্পর্ক বয়ে চলা। তাই স্ত্রী যতই উপযুক্ত হোক না কেন, দৃষ্টি গড়ায় নতুনের খোঁজে। পুরনো অভ্যাস তাকে তাড়িয়ে নিয়ে বেড়ায়। নিজের এই বদ অভ্যাসের জের রয়ে যায় বিয়ের পরেও। আর তাই পরকীয়ায় জড়ানোটা তার কাছে দোষের বলে মনে হয় না।

অপেক্ষাকৃত সুন্দর
নিজের অমতে বা যোগ্যতার অভাবে মনের মতো বউ না পেলে অতৃপ্তি থেকেই যায়। নিজের স্ত্রী অপেক্ষা সুন্দর কোনো নারী দেখলে মন গলে যাওয়াটা তার কাছে স্বাভাবিক ঘটনা। এই ভাবনা থেকেই অন্যের প্রেমিকা/স্ত্রীর প্রতি আকর্ষণ জন্মায়।

ফাঁদে পড়া
অনেক মেয়ে আছে, যারা নিজের প্রেমিক বা স্বামী থাকা সত্ত্বেও পর পুরুষের মনযোগ আকর্ষণ করার চেষ্টা করেন। আর সেই চেষ্টার ফাঁদেও আটকে যায় অনেক পুরুষ। তাছাড়া নিষিদ্ধের প্রতি দুর্নিবার আকর্ষণ থাকে সবার। সেই আকর্ষণে কখন যে একটা পুরুষ ফাঁদে জড়িয়ে যায় তা নিজেই বলতে পারেন না।

দায়িত্ব কম
পরস্ত্রীর সঙ্গে সম্পর্ক করার সুবিধা হলো দায়িত্ব কম। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই কোন প্রতিজ্ঞার মধ্যে জড়াতে হয় না। ভরণপোষনের দায়িত্ব থাকে না। আর অনেক পুরুষের কাছেই এটা একটা প্লাস পয়েন্ট! তাছাড়া অনেক টাকাওয়ালা পুরুষও নিজের একটু রোমান্সের জন্য অহরহ জড়িয়ে যাচ্ছেন পরকীয়ায়।

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this: