জীবনে এমন কত বিচ্ছেদ, কত মৃত্যু আছে, ফিরিয়া লাভ কি? পৃথিবীতে কে কাহার…

mwcloseবিজ্ঞানের উন্নতির সঙ্গে তাল মিলিয়ে মানুষের জীবনযাত্রা সহজ হলেও কমে যাচ্ছে মানুষের প্রজনন ক্ষমতা৷ যে সব ইলেক্ট্রনিক্স পণ্য ব্যবহৃত হচ্ছে তা থেকে বিচ্ছুরিত বিভিন্ন ধরণের রেডিয়েশনের পাশাপাশি খাবারে মিশ্রিত কেমিক্যাল ও অনিয়ন্ত্রিত জীবন যাত্রার ফলে পুরুষের শুক্রাণু উৎপাদনের ক্ষমতা হ্রাস পাচ্ছে৷ সঙ্গে কমে যাচ্চে শুক্রণুর গুণগত মানও৷ বর্তমানে অধিকাংশ দম্পতি সন্তানের জন্য চিকিৎসকের কাছে দৌঁড়ান৷ কিন্তু দানিক খাবনারের তালিকায় সামান্য কিছু খাবার সংযোজন করলেই পুরুষের শুক্রাণুর পরিমাণ ও গুণগত মান বাড়তে পারে৷

ইতালির তুলিরন শহরের এক হাসপাতালে গবেষণা চালিয়ে দেখা গিয়েছে, প্রতিদিন মাত্র সাতটি করে কাঠবাদাম খেলে পুরুষের শুক্রাণুর মান বাড়তে পারে৷ শুধু কাঠবাদামই নয়, যে কোনও ধরণের বাদামই শুক্রণুর গণগত মান বাড়াতে সাহায্য করে৷

গবেষণায় অংশগ্রহকারীদের দুটি দলে ভাগ করা হয়৷ এদের একদলকে প্রতিদিনের খাবারের সঙ্গে সাতটি কাঠবাদাম খেতে দেওয়া হয় ও বাকীদেরকে খাবারে সামুদ্রিক মাছ ও শস্যজাতীয় খাবার দেওয়া হয়৷ দ্বিতীয়দলের খাদ্যতালিকা থেকে প্রক্রিয়াজাত মাংস ও অন্যান্য খাদ্য বাদ দেওয়া হয়৷ তবে প্রথম দলের খাদ্য তালিকা স্বাভাবিকই রাখা হয়৷ নির্দিষ্ট সময় পরে দেখা যায়, উভয় দলেরই প্রজনন ক্ষমতা বেড়েছে৷

টমেটোই এই বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারে৷ গাঢ় লাল রঙের টমেটো পুরুষের প্রজনন ক্ষমতা বাড়াতে সক্ষম৷ টমেটোর ফলে পুরুষের শুক্রণুর পরিমাণ ৭০ শতাংশ পর্যন্ত বৃদ্ধি পায় ও প্রজননের ক্ষমতা বাড়ে৷ ব্রিটেনের ইনফার্টিলিটি নেটওয়ার্কের করা একটি গবেষণা থেকে উঠে এসেছে এই তথ্য৷

Advertisements

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this: