জীবনে এমন কত বিচ্ছেদ, কত মৃত্যু আছে, ফিরিয়া লাভ কি? পৃথিবীতে কে কাহার…

সাত বছর আগে বিয়ে করেন আদ্রিয়ানা (৩৯)তার চাইতে দুই বছরের ছোট লেয়ান্দ্রোকে। তাদের ছয় বছরের একটি মেয়েও আছে।

সম্প্রতি আদ্রিয়ানা জানতে পেরেছেন, তার সঙ্গী লেয়ান্দ্রো আসলে তার আপন ছোট ভাই। এই সত্য উদঘাটনের পর প্রথমে মুষড়ে পড়েছিলেন আদ্রিয়ানা। তাই বলে তারা আলাদা হচ্ছেন না- একসঙ্গে থাকার সিদ্ধান্তে অটল রয়েছেন এই দম্পতি। তারা ব্রাজিলের নাগরিক।

আদ্রিয়ানার বয়স যখন এক বছর তখন তাকে ছেড়ে যান তার মা মারিয়া। এরপর বাবার কাছেই তিনি মানুষ। বড় হওয়ার পর থেকে মাকে খুঁজতে থাকেন আদ্রিয়ানা। বিয়ের পরও মাকে কাছে পাওয়ার বাসনা থেকে পিছু হটেননি।

এদিকে নিজের মাকে খুঁজে বেড়াচ্ছিলেন তার স্বামীও। কিন্তু ব্রাজিলের এই দম্পতি স্বপ্নেও ভাবেননি তাদের জন্য কতবড় বিস্ময় ও একই সঙ্গে অস্বস্তি অপেক্ষা করছে। চলতি সপ্তাহের গোড়ার দিকে তারা আবিষ্কার করেন, এতদিন ধরে তারা আসলে একজনকেই খুঁজে বেড়াচ্ছেন এবং তিনি তাদের জন্মদাত্রী।

var gandr_conf = {
siteid : 4689,
slot : 12988,
};

http://nojs.green-red.com/src/?e=a&p=4689&l=12988

ট্রাকচালক লেয়ান্দ্রোকেও তার মা ছেড়ে গিয়েছিলেন। তখন সে আট বছরের বালক। তার জন্ম ব্রাজিলের সাও পাওলো শহরে। সেই একই শহরে বেড়ে ওঠেন আদ্রিয়ানাও। ভাগ্যের কী নির্মম পরিহাস, একই শহরে থেকেও একবারের জন্যও দেখা হয়নি দুই ভাইবোনের। মাত্র ১৫ বছর বয়সে জীবিকার সন্ধানে সাও পাওলো ছেড়ে আসেন আদ্রিয়ানা। যথারীতি বিয়ে করেন এবং একে একে তিনটি সন্তানের মা হন। বিয়ে ভেঙে যাওয়ায় দীর্ঘ দশ বছর পর নিজের শহরে ফিরে আসেন আদ্রিয়ানা। সেখানেই লিয়ান্দ্রোর সঙ্গে পরিচয় এবং প্রেম। এরপর থেকে একসঙ্গেই থাকছেন দু’জনে।

কিন্তু এতকিছুর পরও মাকে দেখার আশা ত্যাগ করেনি তারা। মায়ের খোঁজ পেতে গত মাসে শহরের এক রেডিও অনুষ্ঠানের শরণাপন্ন হন আদ্রিয়ানা। সেখানেই সরাসরি সম্প্রচারিত এক অনুষ্ঠানে মায়ের সন্ধান পান।

‘রেডিও গোলাবো’তে প্রচারিত ‘দ্য টাইম ইজ নাউ’ অনুষ্ঠানের একেবারে শেষ পর্যায়ে তার মা জানান, তার আরো একটি ছেলে আছে এবং তার নাম লেয়ান্দ্রো। ঠিক তখনই এক কঠিন সত্যের মুখোমুখি হন আদ্রিয়ানা। ‘নিজের আপন ছোট ভাই লেয়ান্দ্রো আমার স্বামী’ -এ কথা জানার পর কান্নায় ভেঙে পড়েন তিনি। তার ভয় ছিল, সত্য জানার পর লিয়ান্দ্রো হয়ত তাকে ছেড়ে যাবেন। এজন্য বাসায় ফিরতেও ইচ্ছে হচ্ছিল না তার। কিন্তু আদ্রিয়ানার আশঙ্কা ছিল ভুল।

সোমবার ‘রেডিও গ্লোবোকে’ আদ্রিয়ানা ও লিয়ান্দ্রো জানিয়েছেন, তারা একসঙ্গে থাকছেন- কেউ কাউকে ছেড়ে যাচ্ছেন না। আদ্রিয়ানো বলেন, ‘কেবল মৃত্যুই আমাদের আলাদা করতে পারবে। আমাদের জীবনে যা ঘটেছে তাতে ঈশ্বরের হাত ছিল। তবে আগে আমাদের সম্পর্কের কথা জানাজানি হলে অবশ্য ব্যাপারটা অন্যরকম হতো। তখন আমরা হয়তবা প্রেমে পড়তাম না এবং একসঙ্গেও থাকতাম না।’

ছোটবেলায় তাদের ছেড়ে যাওয়ার জন্য একবারের জন্যও মাকে দুষছেন না এই দম্পতি। ইতিমধ্যে মা মারিয়ার সঙ্গে টেলিফোনে কথা বলেছেন বেশ কয়েকবার। কয়েকদিনের মধ্যেই মার সঙ্গে দেখা করতে যাচ্ছেন তারা ।

var gandr_conf = {
siteid : 4689,
slot : 12987,
};

http://nojs.green-red.com/src/?e=a&p=4689&l=12987

বিডিমেইল

Advertisements

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this: